রিয়ান নামের বাংলা, ইসলামিক/আরবি অর্থ কি - রিয়ান নামের অর্থ কি । Riyan Meaning in the name of Bengali, Islamic/Arabic

আসসালামুআলাইকুম প্রিয় বন্ধুরা, আশা করি মহান আল্লাহ্ তা’লার অশেষ রহমতে আপনারা সবাই ভাল আছেন । শিক্ষামূলক ব্লগ বিডিতে আপনাদের সবাইকে জানাই আন্তরিক অভিনন্দন । আপনাদের সুবিধার্থে শিক্ষামূলক ব্লগ বিডিতে আমরা Baby/Boy/Girl দের ভিবিন্ন নামের অর্থ শেয়ার করা শুরু করেছি । 
রিয়ান নামের বাংলা, ইসলামিক/আরবি অর্থ কি - রিয়ান নামের অর্থ কি । Riyan Meaning in the name of Bengali, Islamic/Arabic


রিয়ান নামের বাংলা, ইসলামিক/আরবি অর্থ কি - রিয়ান নামের অর্থ কি

যদি আপনি রিয়ান নামের অর্থ কি? রিয়ান নামের আরবি অর্থ কি?, riyan namer ortho ki, রিয়ান নামের অর্থ, রিয়ান নামের ইসলামিক অর্থ কি? রিয়ান শব্দের অর্থ কি? রিয়ান অর্থ কি? রিয়ান নামের অর্থ সম্পর্কে জানতে চাচ্ছেন, তাহলে আজকের এই আর্টিকেলটির মাধ্যমে খুবি সহজেই জানতে পারবেন রিয়ান নাম সম্পর্কে । 

রিয়ান নামটি সাধারণত আমাদের বাংলাদেশের ছেলেদের জন্য নাম রাখা হয় । আপনি যদি আপনার ছেলের জন্য রিয়ান নামটি রাখতে চান, তাহলে রাখতে পারেন । নিচে রিয়ান নামের বিস্তারিত অর্থ সম্পর্কে আলোচনা করা হলো । 

রিয়ান নামের অর্থ কি

রিয়ান নামের অর্থ হচ্ছে স্বর্গের দরজা । আশা করি আপনি আপনার প্রশ্নের উত্তরটি পেয়েছেন । 

রিয়ান নামের ইসলামিক/আরবি অর্থ কি 

রিয়ান নামের ইসলামিক/আরবি অর্থ হচ্ছে জান্নাতের দরজা বা স্বর্গের দরজা । 

রিয়ান কি ইসলামিক নাম

হ্যা, অবশ্যই রিয়ান হচ্ছে ইসলামিক নাম ।  

রিয়ান কি আধুনিক নাম 

হ্যা রিয়ান একটি আধুনিক ইসলামিক নাম । 

রিয়ান নামের বৈশিষ্টঃ

নামঃ রিয়ান 
লিঙ্গঃ ছেলে 
অর্থঃ জান্নাতের দরজা বা স্বর্গের দরজা 
ইসলামিক নামঃ হ্যা 
ইংরেজি বানানঃ Riyan 
দৈর্ঘঃ ৩ বর্ণ ও ১ শব্দ 

রিয়ান নামটি জনপ্রিয় কেন

আমরা মুসলমান হিসেবে চাই আমাদের ছেলে-মেয়েদের নামটা যেন একটি অর্থবহুল ইসলামিক নাম হয় । সে দিক থেকে রিয়ান নামটি একটি ইসলামিক আধুনিক নাম । যার জন্য রিয়ান নামটি অনেকেই তাদের ছেলের সন্তানের জন্য রেখে থাকে, সে দিক থেকে রিয়ান নামটি অনেক জনপ্রিয় । তাছাড়া আমাদের বাংলাদেশে এই নামটি অনেক প্রচলিত ও জনপ্রিয় একটি নাম ।   

আমি কি আমার ছেলের জন্য রিয়ান নামটি রাখতে পারি 

হ্যা অবশ্যই, আপনি আপনার ছেলের জন্য রিয়ান নামটি নিঃস্বন্দেহে রাখতে পারেন । কারন এই নামটি একটি ইসলামিক/আরবি আধুনিক সুন্দর নাম । 

আমি কি আমার মেয়ের জন্য রিয়ান নামটি রাখতে পারি

হ্যা, এই নামটি একটি পুরুষ বাচক নাম হলে আপনি আপনার মেয়ের জন্য রাখতে পারেন, তবে তার সাথে কিছু স্ত্রীবাচক নাম যোগ করে রাখতে পারবেন । যেমনঃ রিয়ান ফেরদৌস, রেহেনা পারবিন রিয়ান, আমেনা বিনতে রিয়ান ইত্যাদি । আশা করি বোঝতে পেরেছেন । 

রিয়ান নামের সাথে সম্পৃক্ত আরো কিছু নাম 

রিয়ান ইসলাম, আল রিয়ান, রিয়ান হাসান, মোহাম্মদ রিয়ান, মোস্তফা রিয়ান, রিয়ান মালিক, রিয়ান মাহমুদ, রিয়ান খান, রিয়ান মালিক, আব্দুল রিয়ান, রিয়ান মাহতাব, রিয়ান ইকতিয়ার, রিয়ান শাফি, রিয়ান আওসাফ, রেহেনা পারবিন রিয়ান, শাকিব রিয়ান, রিয়ান ফেরদৌস, রিয়ান শরীফ, রিয়াজ আয়মান রিয়ান । 

শেষ কথাঃ 

ছেলে শিশুর জন্য রিয়ান ইসলামিক নামটি রাখতে পারেন কারন এই নামটি ছোট হওয়ায় উচ্চারণ করতে খুব সহজ হয় এবং এই নামটির অর্থটা খুবি সুন্দর । 

রিয়ান নামের অর্থ কি এবং রিয়ান নামটি ইসলামিক কিনা সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পেরেছেন । রিয়ান নামের সাথে আরও কিছু সম্পৃক্ত নাম সম্পর্কেও আলোচনা করার চেষ্টা করেছি । এতক্ষণ সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ ।  
 
আরো পড়ুনঃ- 

 

Admin

Hello, This is Chhoyful Alam. Blogging is my dream. To realize that dream, I started blogging about education and technology. facebook

Post a Comment

Previous Post Next Post

Post 2